তারেকের নির্দেশে ব্যারিস্টার খোকনের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার

তারেকের নির্দেশে ব্যারিস্টার খোকনের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার

তারেকের নির্দেশে ব্যারিস্টার খোকনের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার
তারেকের নির্দেশে ব্যারিস্টার খোকনের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার

জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের পদ থেকে ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকনের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়েছে। তারেক রহমানের নির্দেশে দুঃখ প্রকাশ করে চিঠি দেয়ার পর এই বহিস্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়।

মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের কেন্দ্রীয় দফতর সম্পাদক জিয়াউর রহমান এ তথ্য জানান।

দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে সুপ্রিম কোর্ট বারের সভাপতির পদ নেয়ায় ব্যারিস্টার খোকনকে বহিষ্কার করে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটি। ২১ এপ্রিল জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের দফতর সম্পাদক মো. জিয়াউর রহমানের সই করা বিজ্ঞপ্তিতে বহিষ্কারের বিষয়টি জানানো হয়।

বিগত ৬ ও ৭ মার্চ ছিল সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচন। সভাপতি পদে নির্বাচিত হতে মরিয়া ছিলেন সাতবারের আইনজীবী সমিতির সম্পাদক এবং দুবারের সভাপতি বিএনপির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন। দলের বেশিরভাগ নেতাকর্মীর যখন এ নির্বাচন নিয়ে তেমন কোনও মাথাব্যথা ছিলো না, তখন ভোট গণনার সময় উপস্থিতি স্পষ্ট করে তার আগ্রহ।

নানা জটিলতা শেষে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনের ফলাফল আসে তিনদিন পর ১০ মার্চ। মাহবুব উদ্দিন খোকনের ঝুলিতে ওঠে সভাপতির পদ। কিন্তু এবার শুরু হয় দলীয় নাটক।

জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সিদ্ধান্ত আসে নির্বাচিত হলেও দায়িত্ব নিতে পারবেন না সভাপতি। তবে ফোরামের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে বিএনপির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। শাস্তি হিসেবে তাকে ফোরামের সিনিয়র সহ-সভাপতির পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। এতে ফোরামে দেখা দেয় বিভক্তি।

খবরটি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2024 DailyProvati
Design BY NewsTheme